HSC Assignment 2021 Bangla Answer for 2022 HSC Exam (1st Week)

Hsc Assignment Bangla Answer 2022: আজ তোমাদের সাথে এইচএসসি 2022 সালের পরীক্ষার্থীদের 2021 সালের Assignment সম্পর্কে আলোচনা করব। মূলত আজকে আমরা তোমাদের hsc bm bangla assignment answer দিব। তোমরা আমাদের এই ওয়েবসাইটে পরবর্তী এইচএসসি অ্যাসাইনমেন্ট 2022 উত্তর পাবে।

মামার নিষেধ অমান্য করিয়া, মাতৃ-আজ্ঞা ঠেলিয়া তারপরে আমি কানপুরে আসিয়াছি। কল্যাণীর বাপ এবং কল্যাণী এর সঙ্গে দেখা হইয়াছে। হাতজোড় করিয়াছি,মাথা হেঁট করিয়াছি, শম্ভুনাথ বাবুর হৃদয় গলিয়াছে। কল্যাণী বলে,

আমি বিবাহ করিব না।

আমি জিজ্ঞাসা করলাম, ’কেন’।

সে বলল, ’মাতৃ আজ্ঞা’।

কি সর্বনাশ! এ পক্ষেও মাতুল আছে নাকি।

তারপরে বুঝলাম, মাতৃভূমি আছে। সে বিবাহ ভাঙ্গার পর হইতে কল্যাণী মেয়েদের শিক্ষায় ব্রত গ্রহণ করিয়াছে।

অপরিচিতা গল্পে অপরিচিতা বিশেষণের আড়ালে যে বলিষ্ঠ ব্যক্তিত্বের নারীর কাহিনী বলা হয়েছে, তার নাম হচ্ছে কল্যাণী। এই গল্পে যৌতুক প্রথা এর বিরুদ্ধে কল্যাণী এবং তার পিতার দৃঢ়চেতা মনোভাব ফুটিয়ে তোলা হয়েছে।

এটি গল্প হলেও বাস্তবের সাথে পুরোপুরি মিল রয়েছে। যৌতুক প্রথার বিরুদ্ধে নারী পুরুষের সম্মিলিত প্রতিরোধ এর কথা এই গল্পে ব্যক্ত হয়েছে। পিতার বলিষ্ঠ প্রতিরোধ এবং কন্যা কল্যাণীর দেশ চেতনায় উদ্বুদ্ধ ব্যক্তিত্বের জাগরণ ও তার অভিব্যক্তিতে কে গল্পটি সার্থক।

অপরিচিতা গল্পের আলোকে কল্যাণীর সংকট এবং থেকে বেরিয়ে আসার জন্য তার দৃঢ়চেতা মনোভাব:

কল্যাণীর মত বাস্তবে বর্তমান পৃথিবীতে বহু নারী যৌতুক প্রথার বলি হচ্ছে। অপরিচিতা গল্পে অনুপম একজন বাঙালি যুবক। সে বিশ্ববিদ্যালয়ের উচ্চতরডিগ্রি অর্জন করেছে। তবুও সে তার পরিবারের কাছে ব্যক্তিত্বহীন এবং অসহায় পুতুল মাত্র। তাকে দেখলে আজও মনে হয় সে যেন মায়ের কোল সংগ্রহ শিশুমাত্র। গল্পে অনুপমের মতো একজন শিক্ষিত কিন্তু ব্যক্তিত্বহীন পুরুষের কাপুরুষচিত আচরণ, লোভী মামার লোভনীয় আচরণ যেন উনিশ ও বিশ শতকের এই সমাজকেই প্রতিফলিত করেছে।

অনুপমের মামা অনুপমের বিয়ের লগ্ন পেরিয়ে গেলেও সে তার অহমিকার কাছে ছিল দৃঢ়। সে ভয়ে ছিল হয়তো কন্যাপক্ষ তাদের ফাঁকি দিবে। এজন্য সবার আগেই তিনি যৌতুকের সব অর্থ এবং গয়না বুঝে নিতে চাইল। কন্যাপক্ষ সবকিছু বুঝিয়ে দিলো বটে। কিন্তু কল্যাণীর মত দৃঢ়চেতা মনোভাব যৌতুক প্রথা কে হার মানালো। কল্যাণী যৌতুক প্রথা থেকে বেরিয়ে আসলো এবং সে তার মাতৃভূমি দেশ চেতনায় উদ্বুদ্ধ হলো। অপরিচিতা গল্পের কল্যাণী একজন ব্যক্তিত্ব সম্পন্ন পিতার সিদ্ধান্তে অনুপমের সঙ্গে বিয়ে ভেঙে গেলে গেলে সে তার পিতার যৌক্তিক মতামতকে সম্মান জানিয়েছে। পরবর্তীতে মাতৃভূমি সেবায় ব্রত করেছে। আর তার উপায় হিসেবে বেছে নিয়েছে মেয়েদের শিক্ষা দান করাকে অর্থাৎ একই সঙ্গে সে হয়ে উঠেছে দেশ প্রেমিক এবং নারী জাগরণের পথপ্রদর্শক।

অর্থাৎ নিজের বিয়ে ভেঙে যাওয়ার কষ্ট তিনি একটুও পাননি বরং তিনি যৌতুক প্রথা থেকে বেরিয়ে এসেছেন এবং সমাজে যৌতুক প্রথা নির্মূল করতে তিনি নারী শিক্ষার প্রসার শুরু করেন। সুতরাং কল্যাণী যেন সমাজের কল্যাণ এর মতই একজন দৃঢ়চেতা নারী।

এইচএসসি Assignment 2022 বাংলা উত্তরটি কিভাবে সাজানো হয়েছে তা ভিডিওর মাধ্যমে জানতে হলে দেখে নিতে পারো:

কিন্তু অনুপম এবং অন্যদের ভূমিকা ইতিবাচক হলে কল্যাণীর জীবন ভিন্ন হতে পারত।

প্রত্যেক নারী এবং পুরুষ একটি সময়ে এসে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। পরিবার গঠনের পূর্বশর্ত হচ্ছে বিবাহ। বিবাহ হচ্ছে দুটি মনের মিলন এবং পরিবার গঠন। কিন্তু এমন একটি পবিত্র কাজে বাধা হয়ে দাঁড়ায় যৌতুক প্রথা নামক ভয়ানক ব্যাধি। যার ফলাফল আমরা অপরিচিতা গল্পে দেখেছি। কিন্তু যদি অনুপম দৃঢ়চেতা ব্যক্তিত্বের হত ও সে পুতুলের মত না হয়ে সৎ সাহসী এবং সত্য বলায় ব্রতী হতো, তাহলে কল্যাণীর জীবন ভিন্ন হতো। এছাড়া আমাদের সমাজের লোভ নামক ব্যাধি মারাত্মক আকারে ছড়িয়ে পড়েছে। গল্প অনুপমের মামা যদি অহমিকা না করতো তাহলে অনুপম এবং কল্যাণীর বিবাহ হতো। তারা নতুন পরিবার গঠন করতে পারত। বিশেষ করে গল্পের শেষাংশে অনুপমের সহজ সরল স্বীকারোক্তি বলে দেয় তার বিবাহ করার আকাঙ্ক্ষা। তাদের লোভ নামক ব্যাধি না থাকলে কল্যাণী পরিবার গঠন করে, তার সন্তানদের সঠিক শিক্ষা দানের মাধ্যমে সমাজের উপকারে আসতো। কল্যাণী সুখী পরিবারের অন্তর্ভুক্ত হতো।

বাস্তব অভিজ্ঞতা থেকে নারীর এগিয়ে চলার প্রতিবন্ধকতাগুলো:

রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেন, সুফিয়া কামাল এবং গল্পে কল্যাণীর মতো নারীদের বলিষ্ঠ ভূমিকার পরেও সমাজে এখনো নারীর ক্ষমতায়ন প্রতিষ্ঠিত হয়নি। এখনো নানা ক্ষেত্রে নারীদের এগিয়ে চলার পথে প্রতিবন্ধকতা রয়ে গেছে। যদি একটি উদাহরন দিতে পারতাম-

১. শিক্ষা ক্ষেত্রে নারীরা এখনো পিছিয়ে। বিশেষ করে গ্রাম্য এলাকায়। নারীদের এখনো সেখানে অল্প বয়সে বিয়ে দিয়ে দেওয়া হয় এবং নারীদের প্রতিভা বিকাশের সুযোগ কে নিভিয়ে দেওয়া হয়।

২. নারীদের উচ্চশিক্ষায় অনুৎসাহিত করা হচ্ছে। বিশেষ করে উচ্চতর ডিগ্রী অর্জনের ক্ষেত্রে।

৩. পেশী শক্তির ভিত্তিতে নারীদের পিছিয়ে রাখা হয়। যেন নারীরা সমাজের কাজে আসবে না।

এর কারণ গুলো কি?

গ্রাম্য এলাকায় মাতা পিতারা এখনো শিক্ষার গুরুত্ব সম্পর্কে সচেতন নয়। তাদের মেয়ের প্রতিভা বিকাশের একটি সুযোগ রয়েছে, এটা তারা এখনো বুঝতে পারেনি। তারা মনে করে যত দ্রুত সম্ভব তাদের বিয়ে দিলে সমস্যা চলে যাবে। এই মনোভাবের কারণে সমাজে নারীরা এখনো পিছিয়ে।

উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে নারীদের দেশের বাইরে যাওয়া লাগতে পারে। যা পরিবার কখনই মেনে নেয় না। এই সমস্যা থেকে বেরিয়ে আসতে হলে নারী শিক্ষার গুরুত্ব সম্পর্কে বুঝতে হবে।

আমাদের বুঝতে হবে পেশিশক্তি সব নয়। সৃজনশীল কাজের মাধ্যমে নারীরা সমাজের উপকার করতে পারে।

পঠিত গল্প এবং বাস্তব ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে নারীর এগিয়ে চলার পথে সহায়ক ভূমিকা গুলো;

সুচিত্রা গল্পের কল্যাণীর মতোই এক সাহসী নারী। স্থানীয় প্রভাবশালী ব্যক্তিরা তার স্বামীর জমি দখল করে নেয়। এর বিরুদ্ধে তিনি আন্দোলন গড়ে তোলেন এবং জমি দখল করে নেন। পরবর্তীতে তিনি আদিবাসী নারীদের দুঃখ কষ্ট দূর করার জন্য তাদের পাশে গিয়ে দাঁড়ান।

সুচিত্রা এবং গল্পের কল্যাণী নিজেদের অধিকার আদায়ে প্রতিবাদ প্রতিবাদী হয়ে ওঠেন। প্রতিবাদী মনোভাব ই তাদের মর্যাদাশীল করে তুলেছে। অন্যায়ের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে তারা সমাজের প্রচলিত কু-প্রথা ও ধ্যান ধারনার পরিবর্তনে সচেষ্ট হন। জীবনের তিক্ত অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে তারা মানুষের কল্যাণের পক্ষে কাজ করেছেন। নারীর ভাগ্য উন্নয়নের লক্ষ্যে তারা অন্যদের পাশে দাঁড়ান। কল্যাণী যৌতুক প্রথায় নিজেকে বলি না দিয়ে দেশসেবা তথা নারী শিক্ষা উন্নয়নের কাজে ব্রতী হয়। অপরদিকে সুচিত্রা সমাজের প্রভাবশালী ব্যক্তি ও তাদের অন্যায়ের বিরুদ্ধে আন্দোলন করে এবং নারী উন্নয়নে অংশগ্রহণ করেন। মূলত তাদের দৃঢ় ব্যক্তিত্ব ও বলিষ্ঠ ভূমিকার কারণেই সমাজের উন্নয়নে তারা ভূমিকা রাখতে পেরেছে।

আশা করি উপরোক্ত আলোচনার পরিপ্রেক্ষিতে তোমরা Hsc Assignment Bangla Answer বুঝতে পেরেছ।

 আমাদের পরবর্তী HSC Assignment 2021 Answer পাবেন এখানে

একাদশ শ্রেণীর এসাইনমেন্ট ২০২১; এইচএসসি এসাইনমেন্ট ২০২১; ২০২২ সালের এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের এসাইনমেন্ট উত্তর; কলেজ এসাইনমেন্ট;

18 thoughts on “HSC Assignment 2021 Bangla Answer for 2022 HSC Exam (1st Week)”

  1. Thanks a lot.
    It is very helpful. First a bujte parsilam na pore Agula theke dhona nia modifi valo vabe likte pareci , thanks for it!!

    Reply
  2. মামার নিষেধ অমান্য করিয়া, মাতৃ-আজ্ঞা ঠেলিয়া তারপরে আমি কানপুরে আসিয়াছি। কল্যাণীর বাপ এবং কল্যাণী এর সঙ্গে দেখা হইয়াছে। হাতজোড় করিয়াছি,মাথা হেঁট করিয়াছি, শম্ভুনাথ বাবুর হৃদয় গলিয়াছে। কল্যাণী বলে,

    আমি বিবাহ করিব না।

    আমি জিজ্ঞাসা করলাম, ’কে

    eikhan theke likhte hobe???

    Reply

Leave a Comment