বীজগণিতের সূত্র সমূহ | বীজগণিতের সকল সূত্র সমূহ এর বাইরে নেই

বীজগণিতের সূত্র সমূহ : আজ আমরা বীজগণিতের সূত্র সমূহ নিয়ে আলোচনা করব।  গণিত মানেই বীজ গণিত, পাটিগণিত ও জ্যামিতি এর সমন্বয়।  যার অধিকাংশ অংশ জুড়ে রয়েছে বীজগণিত।  তাই আমাদের অংক করার সময় বীজগণিতের সূত্র সমূহ(algebra formulas) এর প্রয়োজন অত্যাধিক।  তাই সূত্রসমূহ আজ আপনাদের সরবরাহ করার জন্য হাজির হয়েছি। বীজগণিতের সূত্র সমূহ pdf আকারেও আপনাদের দেওয়া হবে। 

বীজগণিতের সূত্র সমূহ

বীজ গণিত:

বীজগণিত নামটি এসেছে আরবী আল জাবর থেকে যার অর্থ হচ্ছে ”ভাঙ্গা অশ্বসমূহের পুনরায় মিলন” এবং ”হাড় সংযুক্তকরণ”। বীজ গণিত একটি বিস্তৃত ক্ষেত্র। যদি সহজভাবে বলতে চাই তাহলে বীজগণিত হচ্ছে গাণিতিক চিহ্ন গুলির অধ্যায়ন এবং চিহ্ন গুলো ব্যবহার করার নিয়ম। বীজ গণিত, গণিতের সমস্ত শাখার সেতুবন্ধন।

আমরা প্রায় সময় যে ভুল করি, বীজগণিতের সূত্র সমূহ মুখস্ত করি। কিন্তু কিছুদিন পর দেখা যায় আমরা সেগুলো ভুলে যাই। কারণ বীজগণিতের সূত্র মুখস্থ করলে তার মনে থাকবেনা। এগুলো বেশি বেশি প্রাকটিস করতে হবে। অর্থাৎ সূত্রসমূহ দিয়ে বেশি বেশি অংক করতে হবে। তাহলে বীজগণিতের সূত্র আপনার আয়ত্ত হয়ে যাবে। তাই আপনারা যারা বীজগণিতের সূত্র নিয়ে দুশ্চিন্তায় আছেন, তাদের বলব আপনারা সূত্রসমূহ দিয়ে বেশি বেশি অংক করা শুরু করুন। একসময় দেখবেন বীজগণিতের সূত্র আপনাদের পানি হয়ে গেছে।

আমাদের ইউটিউবে আমরা প্রাথমিক গণিত এর সমাধান দিয়ে থাকি। সেখানে আপনারা বীজগণিতের সূত্র সমূহ ব্যবহার পাবেন। আপনারা আমাদের ভিডিও গুলো দেখুন এবং অংক গুলো প্র্যাক্টিস করুন। আমাদের ইউটিউব চ্যানেল নাম: Learning View Bd

এই সূত্রসমুহের মাধ্যমে আপনাদের যে বিষয়গুলো কভার হয়ে যাবে: 

  • বীজগণিতের সূত্র সমূহ pdf
  • বীজগণিতের সূত্র সমূহ class 8
  • বীজগণিতের সূত্র সমূহ class 7
  • বীজগণিতের সূত্র সমূহ ও অনুসিদ্ধান্ত
  • বীজগণিতের সূত্র সমূহ ক্লাস ৬
  • বীজগণিতের সূত্র সমূহ class 10

বীজগণিতের বর্গের সূত্র সমূহ :

  • (a+b)²= a²+2ab+b²
  • (a+b)²= (a-b)²+4ab
  • (a-b)²= a²-2ab+b²
  • (a-b)²= (a+b)²-4ab
  • a² + b²= (a+b)²-2ab.
  • a² + b²= (a-b)²+2ab.
  • a²-b²= (a +b)(a -b)
  • 2(a²+b²)= (a+b)²+(a-b)²
  • 4ab = (a+b)²-(a-b)²
  • ab = {(a+b)/2}²-{(a-b)/2}²
  • (a+b+c)² = a²+b²+c²+2(ab+bc+ca)

বীজগণিতের ঘন এর সূত্র সমূহ(algebra formulas):

বীজগণিতের সূত্র
  • (a+b)³ = a³+3a²b+3ab²+b³
  • (a+b)³ = a³+b³+3ab(a+b)
  • (a-b)³= a³-3a²b+3ab²-b³
  • (a-b)³= a³-b³-3ab(a-b)
  • a³+b³= (a+b) (a²-ab+b²)
  • a³+b³= (a+b)³-3ab(a+b)
  •  a³-b³ = (a-b) (a²+ab+b²)
  • a³-b³ = (a-b)³+3ab(a-b)
  • (a² + b² + c²) = (a + b + c)² – 2(ab + bc + ca)
  • 2 (ab + bc + ca) = (a + b + c)² – (a² + b² + c²)
  • (a + b + c)³ = a³ + b³ + c³ + 3 (a + b) (b + c) (c + a)
  • a³ + b³ + c³ – 3abc =(a+b+c)(a² + b²+ c²–ab–bc– ca)

Read More: পাটিগণিত এর সূত্র | পাটিগণিত সকল সূত্র একসাথে সাথে pdf

ধারার সূত্রাবলী | সমান্তর ধারা | bcs math | ধারার সূত্রাবলী pdf

জ্যামিতি: জ্যামিতির সূত্র, জ্যামিতি কি?

বীজগণিতের ত্রিকোণমিতির সূত্র সমূহ:

বীজগণিতের সকল সূত্র সমূহ
  • sinθ=लম্ব/অতিভূজ
  • cosθ=ভূমি/অতিভূজ
  • taneθ=लম্ব/ভূমি
  • cotθ=ভূমি/লম্ব
  • secθ=অতিভূজ/ভূমি
  • cosecθ=অতিভূজ/লম্ব
  • sinθ=1/cosecθ, cosecθ=1/sinθ
  • cosθ=1/secθ, secθ=1/cosθ
  • tanθ=1/cotθ, cotθ=1/tanθ
  • sin²θ + cos²θ= 1
  • sin²θ = 1 – cos²θ
  • cos²θ = 1- sin²θ
  • sec²θ – tan²θ = 1
  • sec²θ = 1+ tan²θ
  • tan²θ = sec²θ – 1
  • cosec²θ – cot²θ = 1
  • cosec²θ = cot²θ + 1
  • cot²θ = cosec²θ – 1

বীজগণিতের আদি ইতিহাস:

বীজগণিতের উৎপত্তি ব্যবিলিয়নদের কাছে শনাক্ত করা যায়। তারা একটি উন্নত পাটিগণিত ব্যবস্থা তৈরি করেছিল। এই ব্যবস্থার মাধ্যমে তারা একটি আলগরিদমিক প্রক্রিয়া গণনা করতে পেরেছিল। তারা রৈখিক সমীকরণ, দ্বিঘাত সমীকরণ এবং অনিদৃষ্ট রৈখিক সমীকরণ ব্যবহার করে বিভিন্ন সমস্যার সমাধান করার চেষ্টা করেছিল।

প্লেটোর সময় কালে গ্রিক গণিতের পরিবর্তন সাধিত হয়েছে। তারা এমন একটি বীজগণিত তৈরি করেছিল যেখানে বিভিন্ন পদ জ্যামিতিক বস্তুর দ্বারা প্রতিনিধিত্ব করা হতো। মূলত সেগুলো ছিল একটি রেখা যেগুলোর সাথে অক্ষর যুক্ত ছিল। গণিতবিদ মুসা আল-খোয়ারিজমি ”কম্প্লেশন ক্যালকুলেশন বাই কম্প্লেশন এন্ড ব্যালেন্সিং” নামে একটি বই লিখেছিলেন, যা বীজগণিত কে একটি গাণিতিক ভাবে প্রতিষ্ঠা করে। এছাড়া তা পাটিগণিত এবং জ্যামিতি থেকে পৃথক।

বিভিন্ন গণিতবিদ বিভিন্ন সময়ে বীজ গণিতের সূত্র প্রদান করেন। সেই সূত্র কাজে লাগিয়ে তারা বিভিন্ন সমস্যার সমাধান বের করার চেষ্টা করে।

বীজগণিতের সূত্র সমূহ আমরা পিডিএফ আকারে খুব শীঘ্রই দিব। বীজগণিতের সকল সূত্র আমরা চেষ্টা করেছি একসাথে করে দেওয়ার। যদি এর বাইরে কোন সূত্র থেকে থাকে বা যদি আপনাদের আরো কোন সূত্র জানার প্রয়োজন হয়, আমাদের কমেন্টের মাধ্যমে জানান। আমরা আমাদের যথাসাধ্য চেষ্টা করব আপনাদের রিপ্লাই দেওয়ার।

Read More: সেট ও ফাংশন নবম দশম শ্রেণী ব্যাসিক টু এডভান্স একদম ক্লিয়ার

ধারার সূত্রাবলী | সমান্তর ধারা | bcs math | ধারার সূত্রাবলী pdf

ফার্সি গণিতবিদ ওমর খৈয়াম কে বীজগাণিতিক জ্যামিতি ভিত্তি সনাক্ত করতে পারার জন্য সম্মাননা করা হয়। এছাড়া তিনি ঘন সমীকরণের জ্যামিতিক সমাধান বের করেছিলেন। আরেক ফার্সি গণিতবিদ শারাফ আল দিন আল তুসি ঘন সমীকরণের বিভিন্ন ক্ষেত্রে বীজগাণিতিক সমাধান বের করেছিলেন। তিনি ফাংশন ধারণার বিকাশ ঘটিয়েছিলেন। এছাড়া বিভিন্ন সময় বিভিন্ন গণিতবিদ বীজগণিতের উন্নতি সাধন করেছিলেন।

এই ভিডিও টি আপনাদের উপকারে আসবে:

পরিশেষে,

আশা করি বীজগণিতের সূত্র সমূহ আপনাদের উপকারে আসবে। আপনারা আমাদের ওয়েবসাইটে গণিতের সূত্র এর উপর বিভিন্ন লেখা পাবেন। আমরা চেষ্টা করেছি বীজগণিতের সকল সূত্র সমূহ(algebra formulas) আপনাদের দিতে। যাতে আপনারা একসাথে সকল সূত্র পেয়ে সংগ্রহে রাখতে পারেন। এছাড়া আমাদের এই ওয়েবসাইটটি মূলত লেখাপড়া ভিত্তিক।  আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।